আজ, বুধবার | ২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১৫ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ



আদালতের আদেশ উপেক্ষা করে বদরখালীতে সমিতির নির্বাচন নিয়ে মামলা, কারণ দর্শানোর নির্দেশ

চকরিয়া অফিস:
চকরিয়া উপজেলার উপকুলীয় অঞ্চলের বদরখালী ফিশিং বোট মালিক বহুমুখী সমবায় সমিতি আদালতের নির্দেশনা উপেক্ষা করে কথিত নির্বাচন সম্পন্ন করায় আদালতে মামলা (নং অপর১০/২২) দায়ের করা হয়েছে। ১০জানুয়ারী বিজ্ঞ সিনিয়র সহকারি জজ আদালত সদর কক্সবাজারে এ মামলাটি করেন ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি আয়ুব আজম বাহাদুর। আদালতে মামলাটি আমলে নিয়ে আগামী ৩০জানুয়ারীর মধ্যে কারণ দর্শানোর নির্দেশ দিয়েছেন কমিটিকে।
অভিযোগ উঠেছে, চকরিয়া উপজেলা সমবায় বিভাগের কতিপয় কর্মকর্তারা আর্থিক সুবিধা নিয়ে বদরখালী ফিশিং বোট মালিক বহুমুখী সমবায় সমিতির বর্তমান অন্তবর্তী ব্যবস্থাপনা কমিটির চুড়ান্ত অডিট মতে ১৭১ জন সদস্য নিয়ে তৈরী করা ভোটার তালিকাটি বাদ দিয়ে নামে-বেনামে আরো ১৮৬ জনকে নতুন সদস্য করে মোট ৩৫৭ জনকে ভোটার হিসেবে দেখিয়ে অপর একটি ভোটার তালিকা তৈরী করে ভোটদানের সুযোগ দিচ্ছেন।
এ অবস্থায় সমিতির বর্তমান অন্তবর্তী ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি আয়ুব আজম বাহাদুর বাদি হয়ে গত ২৯ ডিসেম্বর ব্যবস্থাপনা কমিটির চুড়ান্ত অডিট মতে ১৭১ সদস্য বিশিষ্ট প্রকৃত ভোটার তালিকা নিয়ে আদালতের আদেশ অনুযায়ী নির্বাচন আয়োজন করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আবেদন জানিয়ে কক্সবাজার জেলা সমবায় কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ দাখিল করেন। একইসঙ্গে চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও), উপজেলা সমবায় কর্মকর্তার দপ্তরেও অভিযোগ দিয়েছেন।
অভিযোগে বলেন, সমবায় আইন অনুযায়ী নির্বাচন পরিচালনা কমিটি ৩০ ডিসেম্বর বদরখালী ফিশিং বোট মালিক বহুমুখী সমবায় সমিতির নির্বাচনী তফসিল ঘোষনা করেন। এরই আলোকে বর্তমান ব্যবস্থাপনা কমিটি (এডহক কমিটি) চুড়ান্ত অডিট মতে সমিতির ১৭১জন সদস্য প্রকৃত ভোটার হিসেবে নির্বাচন পরিচালনা কমিটির কাছে ভোটার তালিকা জমা দেন।
তিনি বলেন, নির্বাচনী প্রস্তুতি মুর্হুতে ব্যবস্থাপনা কমিটির কতিপয় কিছু সদস্য বিজ্ঞ আদালতের আদেশ অমান্য করে অনুমোদন বিহীন বেআইনীভাবে আরও ১৮৬ জনকে নামে-বেনামে সদস্য দেখিয়ে মোট ৩৫৭ জনের ভোটার তালিকা জমা দেয়। যদিও বিজ্ঞ আদালতের আদেশ ছিল ১৭১ সদস্য নিয়ে নির্বাচন করতে হবে। এব্যাপারে দুইপক্ষের সমঝোতায় গঠিত উকিল কমিশনের (আইনগত) মতামতেও তা পরিস্কারভাবে বলা আছে। কিন্তু আদালতের নির্দেশনা উপেক্ষা করে বদরখালী ফিশিং বোট মালিক বহুমুখী সমবায় সমিতির গত ৩০ডিসেম্বর কথিত নির্বাচন সম্পন্ন করায় সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে আদালতে এ মামলাটি করেন। বিজ্ঞ আদালত প্রাথমিকভাবে কারণ দর্শানোর নির্দেশ দিয়েছেন।