আজ, সোমবার | ৪ঠা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ২০শে ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ



কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের ১৮তম বোর্ড সভা সম্পন্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক ঃ১৭ জানুয়ারি ২০২২ খ্রিস্টাব্দ কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের ১৮তম বোর্ড সভা কউক এর নবনির্মিত অফিস ভবনের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান লে: কর্নেল (অব:) ফোরকান আহমদ, এলডিএমসি, পিএসসি। এ সময় বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি (এপিএ) বাস্তবায়নে কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন দপ্তর/সংস্থা সমূহের মধ্যে ২য় স্থান এবং বার্ষিক উদ্ভাবন কর্মপরিকল্পনা বাস্তবায়নে ৩য় স্থান অর্জন করায় বোর্ড সভার পক্ষ হতে কউক চেয়ারম্যানকে অভিনন্দন জানানো হয়।

সভাপতি জানান, গত ০৬ মে ২০১৭ তারিখ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের বহুতল অফিস ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন। মহান আল্লাহর অশেষ রহমতে বহুতল অফিস ভবনের কাজ সম্পন্ন করা হয়েছে। উক্ত ভবন শুভ উদ্বোধনের জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে সার সংক্ষেপ প্রেরণ করা হয়েছে এবং তিঁনি উদ্বোধনের সদয় সম্মতি জ্ঞাপন করেছেন। আশা করি খুব শীঘ্রই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক অফিস ভবন উদ্বোধন করা হবে। যথাসময়ে অফিস ভবনের কাজ সম্পন্ন করায় বোর্ড সদস্যবৃন্দ চেয়ারম্যান মহোদয়কে বিশেষভাবে ধন্যবাদ জানান। সভায় তিনি আধুনিক ও পরিকল্পিত পর্যটন নগরী বাস্তবায়নে মাস্টার প্ল্যান প্রণয়নের বিষয়ে বলেন, বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর মাধ্যমে খুব শীঘ্রই মাস্টার প্রণয়নের কাজ শুরু করা হবে। যথাযথভাবে মাস্টার প্ল্যান প্রণয়নের লক্ষ্যে তিনি বোর্ড সদস্যবৃন্দের সার্বিক সহযোগিতা প্রত্যাশা করেন। তিনি বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ইচ্ছা অনুযায়ী পুরো কক্সবাজারকে নিয়ে একটি আধুনিক ও যুগোপযোগী মাস্টার প্ল্যান প্রণয়নের জন্য সর্বস্তরের মানুষের অংশগ্রহণের মাধ্যমে বাস্তবায়ন করা হবে। এছাড়াও তিনি কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চলমান অন্যান্য প্রকল্পসহ ভবিষ্যত পরিকল্পনা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন এবং উপস্থিত বোর্ড সদস্যবৃন্দ সার্বিক সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন।
কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের সচিব (উপ সচিব) আবু জাফর রাশেদ এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত উক্ত বোর্ড সভায় কউক এর সদস্য (প্রকৌশল); গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি; ভূমি মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি; বেসামরিক বিমান পরিবহণ ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি; বন, পরিবেশ ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি; জেলা প্রশাসকের প্রতিনিধি; স্থাপত্য অধিদপ্তরের প্রতিনিধি; কক্সবাজার গণপূর্ত বিভাগের প্রতিনিধি; পুলিশ সুপারে প্রতিনিধি, চুয়েট এর প্রতিনিধি, কক্সবাজার পৌরসভার প্রতিনিধি, কক্সবাজার শিল্প ও বনিক সমিতির সভাপতিসহ স্থানীয় বোর্ড সদস্যগণ উপস্থিত ছিলেন।