আজ, সোমবার | ২২শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৯ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ



চকরিয়ার অলিশাহ বাজারে চাঁদা না পেয়ে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা ও মল নিক্ষেপ

চকরিয়া প্রতিনিধিঃ
চকরিয়ার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের অলিশাহ বাজারে চাঁদা না দেওয়ায় সংখ্যালগু পরিবারের এক ব্যবসায়ীর কাছ থেকে চাঁদা না পেয়ে হামলা চালিয়েছে। এমনকি ওই ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে রাতের আধারে দুর্গন্ধযুক্ত মল নিক্ষেপ করে ব্যবসায়ীর ক্ষতি সাধন করেছে। এনিয়ে বিজ্ঞ, সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত চকরিয়ায় ১২ডিসেম্বর মামলা (নং সি,আর ১৪৪৪/২০২১ইং) দায়ের করেন। ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের মালিক ফাঁসিয়াখালী ৪নং ওয়ার্ডের উত্তর ঘুনিয়া গ্রামের পরিমল দাশের পুত্র রঞ্জিত দাশ (২০) বাদী হয়ে এ মামলাটি করেন। এতে অভিযুক্ত করা হয়েছে ফাঁসিয়াখালী ২নং ওয়ার্ডের দিগরপানখালী গ্রামের মৃত খুইল্যা মিয়ার পুত্র সরওয়ার আলম ও মোঃ ছিদ্দিকের পুত্র মোঃ বখতিয়ারকে।

অভিযোগে জানাগেছে বাদী রণজিৎ দাশ বিগত ৪ বছর যাবৎ অলিশাহ বাজারে মেসার্স রনজিৎ ষ্টোর নামে মুদির দোকান দিয়ে সুনামের সহিত ব্যবসা করে আসছেন। কিন্তু অভিযুক্তরা ব্যবসায় ঈর্ষান্বিত হয়ে অন্যায়ভাবে ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবী করে। অন্যথায় ব্যবসা করতে দেবেনা মর্মে হুমকি প্রদান করে। এনিয়ে রণজিৎ দাশ গত ২৭নভেম্বর’২১ইং চকরিয়া থানায় সাধারণ ডায়েরী আবেদন সহকারে অভিযোগ করেন। তাতে ক্ষিপ্ত হয়ে ৯ডিসেম্বর’২১ইং দুপুর ১২ ঘটিকায় অভিযুক্তরা বাদীর দোকানে গিয়ে উল্লেখিত চাঁদা দাবী করে। চাঁদা দিতে অস্বীকার করলে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ঢুকে ধারালো দা দিয়ে বাদীকে প্রাণে হত্যার উদ্দেশ্যে মাথা লক্ষ্য করে কোপ মারলে বাদী আত্মরক্ষার্থে দোকানের দরজার গাছের তক্তা নিয়ে ডাল হিসেবে ধরলে দায়ের কোপ তক্তায় পড়ে বাদী আত্মরক্ষা পায়। স্থানীয় লোকজন এগিয়ে গেলে অভিযুক্তরা পালিয়ে যায়।
এরপরও মৃত্যুর হুমকি, অশ্লীল গালিগালাজ অব্যাহত রাখার বিষয়টি বাজার পরিচালনা কমিটিকে অবহিত করেন।  একই ঘটনার দিন দিবাগত রাত ৪ ঘটিকায় অভিযুক্তরা একটি পুরাতন বালতি ভর্তি করে দুর্গন্ধযুক্ত মানুষের মল (পায়খানা) বাদীর দোকান গৃহের সামনের গ্রীলের মাঝখানে সজোরে নিক্ষেপ করে। দোকানের গ্রীলের ছিদ্র দিয়ে মল ঢুকে দোকানে রক্ষিত বিভিন্ন মালামালে, মেঝেতে এবং ক্যাশবাক্সে ও বিক্রয়যােগ্য খাবার সামগ্রীতে পড়ে প্রায় ২০ হাজার টাকার মালামালের ক্ষতি হয়। বর্তমানেও হুমকি ধমকি অব্যাহত রাখায় আইনী প্রতিকার পেতে আদালতে মামলাটি করেছেন বলে বাদী জানিয়েছেন।