আজ, বুধবার | ২৪শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ



রামু থানা পুলিশ ৯ ঘন্টা অভিযান চালিয়ে অপহৃত যুবককে উদ্ধার

ফরিদুল আলম রনি:

রামু থানা পুলিশের রুদ্ধশ্বাস বিশেষ অভিযানে অপহরণের ৯ ঘন্টার ব্যবধানে সৌদি প্রবাসী হারুন কে উদ্ধার করা হয়েছে।

কক্সবাজার জেলার রামু উপজেলার খুনিয়াপালং ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ড দারিয়ারদিঘী থোয়াইংগাকাটা এলাকার সৌদি প্রবাসী হারুন কে একদল সন্ত্রসী দক্ষিণ মিঠাছড়ির পানের ছড়া ঝন্না পাড়ার আবু তাহের প্রকাশ ডাকাত তাহের, আব্দুস শুক্কুর, পিতা অসিউর রহমান , মিজান, বেলাল সহ আরো অনেকে ছিল ধারণা করছে স্থানীয়রা , মূলত এরাই অপহরণ করে এদের একটা বিশাল সেন্টিগ্রেড আছে বিভিন্ন এলাকায় গিয়ে অপহরণ করে নিয়ে আসে দক্ষিণ মিঠাছড়ি জঙ্গলে নিয়ে জাই পরে বিশাল মোটা অঙ্কের টাকা দাবি করেন টাকা না দিলে মেরে ফেলার হুমকি দেন।
স্থানীয়দের জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, গত ১৮ ডিসেম্বর রাত ৭টা ৪৫ মিনিটের সময় অপহরণ করে ১০ লক্ষ টাকা মুক্তিপণ দাবী করে। পরে রামু থানা পুলিশের বিশেষ টিম ৮ ঘন্টা রুদ্রশ্বাস অভিযান পরিচালনা করে ১৯ ডিসেম্বর আনুমানিক ভোর ৫ টার দিকে সুস্থ এবং অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার করে।

১ নং ওয়ার্ডের এম ইউপি সদস্য ডাক্তার নছরুল্লাহ রায়হান) এর সহযোগিতায় -রামু থানা পুলিশকে খবর দিলে রামু থানার : ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ( ওসি) আবু তাহের (দেওয়ানের) নেতৃত্বে একদল পুলিশ সারারাত
রুদ্রশ্বাস অভিযান পরিচালনা করে দক্ষিণ মিঠাছড়ির পানের ছাড়া গহীন জঙ্গল থেকে তাকে উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছে । অভিযানে ছিলেন:
এস আই রাকিব,এস আই সাইফুল,এ এস আই আলাউদ্দীন সহ পুলিশ বাহিনীর অন্যান্য সদস্যরা ।

প্রবাসী হারুন কে অপহরণকারীদের হাত থেকে উদ্ধার করে প্রশংসাই ভাসছেন রামু থানা পুলিশ এবং ভিকটিম হারুনের পরিবার ও এলাকার জনসাধারণ পুলিশকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন ।

অপহরণের শিকার হওয়া ব্যক্তি মোঃ হারুন দারিয়ারদিঘী পশ্চিম থোয়াইংগাকাটা এলাকার হাজী রশিদ আহম্মদের ছেলে এবং সে দীর্ঘদিন সৌদি প্রবাসে জীবনযাপন করছেন গেল কয়েক মাস আগে প্রবাস থেকে সফরে বাড়িতে এসেছেন ।

অন্যদিকে রামু দক্ষিণ মিঠাছড়ি পানের ছড়া এলাকায় একাধিক অপহরণকারীর চক্র রয়েছে তারা বিভিন্ন সময় সুযোগ বুঝে রামুর এলাকা সহ বিভিন্ন জায়গা থেকে সাধারণ লোক জন দেরকে অপহরণ করে গহীন পাহাড়ে নিয়ে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে এরকম ঘটনা অহরহ ঘটছে ওই এলাকাতে। সন্ত্রাসী ডাকাত অপহরণকারীদের হাত থেকে রক্ষা পেতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সহযোগিতা চেয়েছেন এলাকাবাসী ।