আজ, সোমবার | ২২শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৯ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ



চৌফলদন্ডী থেকে পর্ণোভিডিও, ৪ নারী, ১ মানবাধিকারকর্মী আটক

কক্স টিভি প্রতিবেদক ঃ

কক্সবাজার সদর উপজেলার চৌফলদন্ডির একটি বসত বাড়িতে অভিযান চালিয়ে পর্ণোভিডিও, চারজন নারীসহ জমির হোসাইন রুবেল নামের কথিত মানবাধিকারকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ। শুক্রবার ১৩আগষ্ট দিবাগত রাত ৩টার দিকে ইউনিয়নের উত্তর পাড়ায় এ অভিযান চালানো হয়।

আটক জমির হোসাইন রুবেল ওই এলাকার মৃত মোহাম্মদ আলমের ছেলে। সে মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্মলীগের সভাপতি বলে জানা গেছে। তার নিকট থেকে উদ্ধারকৃত পরিচয়পত্রে ‘মানবাধিকার তথ্য পর্যবেক্ষণ সোসাইটি’ নামক একটি সংস্থার চৌফলদন্ডি শাখা কমিটির সভাপতি লেখা আছে।

শনিবার ১৪ আগষ্ট দুুপুরে এ রিপোর্ট লেখাকালে আটক ৫ জনই কক্সবাজার সদর মডেল থানার হেফাজতে রয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট আইনে মামলার প্রক্রিয়া চলছে।

আভিযান ও আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কক্সবাজার সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ মুনীর উল গীয়াস।

তিনি জানান, অভিযোগ পেয়ে একটি বসত বাড়িতে অভিযান চালানো হয়। এ সময় জমির হোসাইন রুবেল নামক ব্যক্তি এবং ৪ জন মহিলা আটক হয়। তারা মাদক ও দেহ ব্যবসার সঙ্গে জড়িত।

ওসি জানান, রুবেলের মোবাইলে অনৈতিক ভিডিও এবং ছবি পাওয়া গেছে। তাদের বিরুদ্ধে মানবপাচার ও পর্নোগ্রাফি আইনে মামলা হচ্ছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, জমির হোসাইন রুবেল কক্সবাজার শহরের বিভিন্ন আবাসিক হোটেলে পতিতা ও মদের আসর বসাতো। লকডাউনে হোটেল বন্ধ থাকায় নিজ বাড়িতেই আসর গড়ে তুলে। তার সঙ্গে রয়েছে আরো নামিদামী কয়েকজন ব্যক্তি। যারা রুবেলের অপকর্মের ভাগ নেয় এবং আশ্রয় প্রশ্রয় দেয়। এমন কয়েকজনের নাম প্রতিবেদককে জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

অভিযোগ আছে, বিভিন্ন নষ্ট মহিলার সাথে সম্পর্ক রয়েছে এ রুবেলের। সে তাদের গোপনে ভিডিও ধারণ করতো। তা নিয়ে ব্লেকমেইলিং ও টাকা হাতিয়ে নিত বিভিন্ন জনের কাছ থেকে। রাজনৈতিক ও মানবাধিকার পরিচয়ে রুবেল গড়ে তুলে অপ্রতিরোধ্য সিন্ডিকেট।

এলাকাবাসী বলছেন, সঠিক অনুসন্ধান করলে অজানা তথ্য ও রহস্য বেরিয়ে
আসবে। পাওয়া যাবে রুবেলের নেপথ্যে থাকা লোকদের আসল পরিচয়। মুখোশ উন্মোচন হবে অপরাধীচক্রের।