আজ, সোমবার | ১৫ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৩১শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ



বাঁচার খুব ইচ্ছে ছিল। কিন্ত আর বেঁচে থাকা সম্ভব হলোনা। চিরকুট লিখে আত্মহত্যা

বাঁচার খুব ইচ্ছে ছিল। কিন্ত আর বেঁচে থাকা সম্ভব হলোনা। শুধু আমার শ্বাশুড়ীর কারণে”…….
চকরিয়ায় চিরকুট লিখে দুই সন্তানের জননীর আত্মহত্যা

চকরিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধিঃ

কক্সবাজারের চকরিয়ায় চিরকুট লিখে আত্মহত্যা করেছে রুমানা আক্তার (২৬) নামে দুই সন্তানের জননী। শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে উপজেলার হারবাং ইউনিয়নের কোরবানীয়া ঘোনা এলাকায় এ আত্মহত্যার ঘটনা ঘটে। রুমানার ওই এলাকার হাফেজ শফিকুর রহমানের স্ত্রী। তার ৯ বছর বয়সী এক ছেলে ও ৭ বছর বয়সী এক কন্যা রয়েছে।

রুমানার হাতের লেখা চিরকুটটি হুবহু তুলে ধরা হল, ‘আমার দুটি সন্তানকে সবাই দেখে রাখবেন। এই পরিবারে আমার সন্তানদের কেউ রাখবেন না। সবার কাছে অনুরোধ। বাঁচার খুব ইচ্ছে ছিল। কিন্ত আর বেঁচে থাকা সম্ভব হলোনা। শুধু আমার শ্বাশুড়ীর কারণে। মানসিকভাবে অনেক অনেক অত্যচারিত মেয়ে আমি। আর পারছি না। আর পারছি না। আর পারছি না। কবরই আমার জন্য শ্রেষ্ট।
আল্লাহ হাফেজ।”

হারবাং পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইন্সপেক্টর আজহারুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। লাশের পাশে একটি চিরকুট পাওয়া গেছে। ওই চিরকুটের লেখা রুমানার কিনা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।
চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুহাম্মদ ওসমান গনি বলেন, লাশ উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।