আজ, সোমবার | ৪ঠা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ২০শে ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ



সাজা পরোয়ানা নিয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছে ঢেমুশিয়ার মেম্বার আজমগীর!

চকরিয়া অফিস:
প্রতারণার মামলায় (সিআর ১৪৬৪/২০১৭) ২১জানুয়ারী’২০২১ ইংরেজি চকরিয়া উপজেলার ঢেমুশিয়া ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের মেম্বার আজমগীর মুছার বিরুদ্ধে ৮ মাসের সাজা দেন চকরিয়ার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত। অপর এক মামলায় (সিআর ৭৮০/১৯) গ্রেফতারি পরোয়ানাও রয়েছে। কিন্তু তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি ও সাজা পরোয়ানা থাকা সত্ত্বেও প্রশাসনের নাকের ডগায় দিব্যি ঘুড়ে বেড়াচ্ছে।
অভিযোগ উঠেছে, বিভিন্ন প্রভাবশালী মহলের মাধ্যমে প্রশাসনকে ম্যানেজ করে আসামি আজমগীর মুছা থেকে অনৈতিক সুবিধা নিয়ে দিনের পর দিন গ্রেফতারি পরোয়ানা মাথায় নিয়ে ঘুরছে বহাল তবিয়তে। সাজা পরোয়ানা নিয়ে বিভিন্ন সামাজিক, রাজনৈতিক, সাংস্কৃতিকসহ সকল জায়গায় তার নিবিড় বিচরণ। সাজা মাথায় নিয়ে তিনি নিয়মিত প্রশাসনের বিভিন্ন জায়গায় বৈঠক করছেন বলেও অভিযোগ উঠেছে।
ঢেমুশিয়া ১নং ওয়ার্ডের মরহুম মোজাফ্ফর আহমদের পুত্র মোঃ আজমগীর মুছা তথ্য গোপন করে ঢেমুশিয়া জিন্নত আলী চৌধুরী উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচনে অংশ গ্রহন করে প্রবিধানমালা ১১/(ঘ) লংঘন করে প্রতারনার আশ্রয় গ্রহন করেন। প্রবিধানমালা লংঘনের ফলে, সভাপতি নির্বাচনে তার ভোটাধিকার প্রয়োগের ক্ষমতা হারান।
দন্ডপ্রাপ্ত আসামি আজমগীর মুছাকে দ্রুত গ্রেফতার করে আইনের শাসন বাস্তবায়ন করার জন্য প্রশাসের কাছে জোর দাবি জানান সচেতন মহল।
চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো: ওসমান গনি জানান, কারো বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা কিংবা মামলার সাজা থেকে থাকলে কিছুতেই ছাড় দেওয়া হবেনা। তিনি বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে দেখছেন বলে জানান।