আজ, মঙ্গলবার | ২১শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ



কক্সবাজারের চকরিয়ায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে ২ জনকে কুপিয়া হত্যা


চকরিয়া সংবাদদাতা।

কক্সবাজারের চকরিয়ায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে মোহাম্মদ সেলিম (৩৮) ও শফিউল আলম প্রকাশ চকিদার শফিকে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) রাত ৮টার দিকে সুরাজপুর-মানিকপুর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের উত্তর মানিকপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। বর্তমানে ওই এলাকা থমথমে বিরাজ করেছে। নিহত সেলিম ওই ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের উত্তর মানিকপুরের বাসিন্দা নুর মোহাম্মদের পুত্র। অপর শফিউল আলম একই এলাকার মৃত আবু সালামের পুত্র। তাকে মুমূর্ষ অবস্থায় প্রথমে চকরিয়া সরকারি হাসপাতাল ও পরে অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় চমেকে প্রেরণকালে পথিমধ্যে মৃত্যুবরণ করেন।
নিহত সেলিমের পিতা নুর মোহাম্মদ জানান, তার পুত্র মোহাম্মদ সেলিম কৃষি করে জীবিকা নির্বাহ করতেন। তার এক মেয়ে ও এক কন্যা শিশু রয়েছে। তিনি আরও বলেন, মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে স্থানীয় শফিউল আলম প্রকাশ চকিদার শফি তার ছেলে মোহাম্মদ সেলিমকে বাড়ি থেকে ডেকে এনে পূর্ব থেকে সশস্ত্র অবস্থায় উৎপেতে থাকা ইউপি সদস্য জাহেদ সিকদারের হাতে তুলে দেন। এসময় ৭-৮জন সশস্ত্র সন্ত্রাসী সেলিমকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে মৃত্যু নিশ্চিত করে। এসময় শফিউল আলম প্রকাশ চকিদার শফি এগিয়ে আসলে তাকেও কুপিয়ে জখম করে। পরে স্থানীয় এলাকাবাসী এগিয়ে আসলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়।
সেলিমের স্ত্রী শফিকা খানম জানান তার স্বামী তামাক চাষ করতেন। তিনি আরও বলেন, সন্ধ্যার দিকে জাহেদ সিকদার ডেকেছে বলে বাড়ি থেকে নিয়ে যান শফি চকিদারকে।
স্থানীয়রা জানান, গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ১নং ওয়ার্ডে ইউপি সদস্য পদে মোহাম্মদ সেলিম প্রতিদ্বদ্বীতা করেছিলেন। তার প্রতিদ্বদ্বী ছিলেন বর্তমান ইউপি সদস্য জাহেদ সিকদার।

সুরাজপুর-মানিকপুর ইউপি চেয়ারম্যান আজিমুল হক জানান, তার ইউনিয়নে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে সন্ত্রাসীরা কুপিয়ে দুইজনকে জখম করেছে। পরে মূমুর্ষ অবস্থায় সেলিমকে চকরিয়া সরকারি হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্মরত চিকিৎসক মোহাম্মদ সেলিম (৩৮) কে মৃত্যু ঘোষণা করেন এবং শফিউল আলম প্রকাশ চকিদার শফিকে চমেকে নেওয়া অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন।
কক্সবাজার সহকারি পুলিশ সুপার (চকরিয়ার সার্কেল) রকীব উর রাজা ও চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ মোহাম্মদ আলী জানান সুরাজপুর-মানিকপুর ইউনিয়নে দুই জনের মৃত্যু হয়েছে। এঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতার করতে পুলিশ অভিযানে রয়েছে। এখনো (বুধবার রাত ৮টা) পর্যন্ত কোন আসামী গ্রেফতার হয়নি।