আজ, বুধবার | ২৪শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ



কুতুবদিয়ায় দুই দিনব্যাপী শুরু হচ্ছে শাহ আব্দুল মালেক আল-কুতুবী মহিউদ্দিন আজমীর (রাহ.) এর ২৪তম বার্ষিক ওরস ও ফাতেহা শরীফ। আগামী ১৮ ও ১৯ ফেব্রুয়ারি দুই দিন চলবে এই ওরস।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

সংবাদ দাতা মোঃ শাহেদুল ইসলাম। 

কুতুবদিয়ায় দুই দিনব্যাপী শুরু হচ্ছে শাহ আব্দুল মালেক আল-কুতুবী মহিউদ্দিন আজমীর (রাহ.) এর ২৪তম বার্ষিক ওরস ও ফাতেহা শরীফ। আগামী ১৮ ও ১৯ ফেব্রুয়ারি দুই দিন চলবে এই ওরস।

দক্ষিণ চট্টগ্রামের অন্যতম বড় এই বার্ষিক ওরস ও ফাতেহা উপলক্ষে দরবারে বিভিন্ন থানা ভিত্তিক প্যান্ডেল নির্মাণের কাজ ও অন্যান্য কার্যক্রম প্রায় শেষ করেছে দরবার এন্তেজামিয়া কমিটি।
আগামীকাল রবিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) ইসলামিক সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা, ওয়াজ মাহফিল, স্মৃতিচারণ, হামদ-নাত ও খ্যাতনামা ইসলামি সংগীত শিল্পীরা গজল পরিবেশন করবেন। সোমবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) দিনব্যাপী নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে গভীর রাতে দরবার পরিচালকের সমাপনী ভাষণ ও আখেরি মুনাজাতের মধ্য দিয়ে সম্পন্ন হবে ২৪তম বার্ষিক ওরস ও ফাতেহা শরীফ।
কুতুব শরিফ দরবার এন্তেজামিয়া কমিটির যুগ্ম মহাসচিব নুরুল ইসলাম ভুট্টো জানান, দরবারে আগত ভক্তদের আপ্যায়নের সব ধরণের প্রস্তুতি শেষ হয়েছে। পারাপারের সুবিধার্থে পর্যাপ্ত বোটের ব্যবস্থা করা হয়েছে। বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে একটি পন্টুন দরবার ঘাটে অবস্থান করছে এবং চট্টগ্রাম সদরঘাট থেকে ১৯ ফেব্রুয়ারি সকালে কুতুবদিয়ার উদ্দেশ্যে একটি বড় স্টীমার ছাড়বে বলে জানান তিনি।
দরবার পরিচালক শাহাজাদা শেখ ফরিদ আল কুতুবী জানান, জাতি-ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে লাখো লাখো ভক্ত-অনুরক্ত এ ওরসে অংশ নেন। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও নিজস্ব স্বেচ্ছাসেবকের মাধ্যমে নেয়া হয়েছে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা। প্রতি বছরের মত এবারও মহিলাদের তিন দরবারে না আসার আহবান জানান তিনি।
উল্লেখ্য, শাহ আবদুল মালেক আল কুতুবী মহিউদ্দীন আজমী (রাহ:) ২০০০ সালের ১৯ ফেব্রুয়ারি মৃত্যু বরণ করেন। প্রতিবছর ১৯ ফেব্রুয়ারি বার্ষিক ওরস ও ফাতেহা শরীফ আয়োজন করে কুতুব শরিফ দরবার এন্তেজামিয়া কমিটি।