আজ, বুধবার | ২৪শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ



চকরিয়ায় রাতের আধাঁরে বিষাক্ত কীটনাশক ও লবণ পানি ছিটিয়ে কৃষকের ফলনকৃত টমেটো ক্ষেত নষ্ট করে দিল

চকরিয়া প্রতিনিধিঃ
চকরিয়ায় রাতের আধাঁরে বিষাক্ত কীটনাশক ও লবণ পানি ছিটিয়ে কৃষকের ২০শতক জমির ফলনকৃত টমেটো ক্ষেত নষ্ট করে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। এতে কৃষকের অন্তত দেড় লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি সাধন হয়েছে। পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের আমানপাড়া এলাকায় কৃষক সেলিম রেজার নিজ জমিতে চাষকৃত টমেটো ক্ষেতে ন্যাক্কারজনক এ ঘটনা ঘটেছে। কৃষক সেলিম ওই এলাকার মৃত দানু মিয়ার পুত্র।

স্থানীয় সাংবাদিকদের কাছে কৃষক সেলিম রেজা জানান, তিনি বিগত ১৬ বছর পূর্বে বিদেশ থেকে দেশে ফিরেন। দেশে চলে আসার পর থেকে নিজ মালিকানাধীন জমিতে চাষাবাদ ও বিভিন্ন ফসল উৎপাদন করে জীবিকা নির্বাহ করেন। বিশেষ করে টমেটো, ঢেরস, মরিচ ও ধানসহ ভালো মানের বিভিন্ন সবজি-ফসলাদি উৎপাদন করেন। সম্প্রতি তার বাড়ির পাশ্ববর্তী মৃত ঠান্ডা মিয়ার পুত্র হেলাল উদ্দিনকে একটি মরিচ ক্ষেত ও ধান চাষের জমি অগ্রিম ভিত্তিতে লাগিয়ত না করায় ক্ষিপ্ত হয়ে বিভিন্ন স্থানে, দোকানে ও পাড়া পড়শির কাছে সেলিম রেজার চাষাবাদি জমির উৎপাদনকৃত টমেটো ক্ষেতের ক্ষতি সাধনসহ হামলা-মারধরের হুমকি দিয়ে আসছেন। তারই সূত্র ধরে কৃষক সেলিম রেজার বাড়ি পাশ্ববর্তী হাইব্রীড টমেটো ক্ষেতে অভিযুক্ত হেলালের নেতৃত্বে একদল দূর্বৃত্ত বিষাক্ত কীটনাশক ও লবণাক্ত পানি ছিটিয়ে প্রায় ২০শতক (৬০ কড়া) জমির টমেটো ক্ষেত নষ্ট করে দিয়েছে। উক্ত টমেটো ক্ষেত গত আড়াইমাস পূর্বে রোপন করেন। বর্তমানে একটি গাছে প্রায় ৪/৫ কেজি করে টমেটো ফলন হচ্ছে। নিজেরাই শ্রমিক হিসেবে খেটেও চাষাবাদে ৪০ হাজার টাকার অধিক খরচ হয়েছে। ফলনকৃত টমেটো চলমান বাজারে বিক্রি করতে পারলে অন্তত দেড় লক্ষাধিক টাকার মোনাফা হত। ২৬ জানুয়ারী গভীর রাতের আধাঁরে ন্যাক্কারজনক এ ঘটনা ঘটলেও ঘটনার পর থেকে ৩ ফেব্রুয়ারী বিকেল পর্যন্ত প্রায় ১০ হাজার টাকার অধিক ব্যয়ে টমোটো গাছ রক্ষার কীটনাশক (ঔষধ) ছিটানো হয়েছে,কিন্তু টমেটো চারা গুলো কিছুতেই রক্ষা করা যাচ্ছেনা। পরিকল্পিত ও শত্রুটা মূলক বিষাক্ত কীটনাশক ও লবন পানি ছিটানোর দায়ে মারাত্মক এই ক্ষতি সাধন হয়েছে। হেলাল একজন সন্ত্রাসী কায়দার লোক হওয়ায় ক্ষেত নষ্ট করে দেওয়ার পরও মামলা করলে প্রাণে মেরে ফেলাসহ দেখে নেওয়ার হুমকি ধমকি দিয়ে যাচ্ছে। এ বিষয়ে প্রশাসনের কাছে আইনি সহায়তা কামনা করেছেন।

চকরিয়া থানার ওসি শেখ মোহাম্মদ আলী জানান, কেউ অপরাধ করে থাকলে এবং এ বিষয়ে অভিযোগ করলে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।