আজ, সোমবার | ২২শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৯ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ



চকরিয়ায় বিভিন্ন ইউনিয়নে তরুণ রাজনীতিবিদ ফয়সাল চৌধুরীর শীতবস্ত্র বিতরণ চকরিয়া

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

চকরিয়ায় বিভিন্ন ইউনিয়নে তরুণ রাজনীতিবিদ ফয়সাল চৌধুরীর শীতবস্ত্র বিতরণ
চকরিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধিঃ
কক্সবাজারের চকরিয়ার কৃতি সন্তান ও দেশ বরণ্য রাজনীতিবিদ জাতীয় পাটি কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য বিশিষ্ট দানবীর মরহুম বদরুল হক চৌধুরীর কনিষ্ঠ ছেলের উদ্যোগে চকরিয়া উপজেলার বেশ কয়েকটি ইউনিয়নে বিপুল সংখ্যক হতদরিদ্র শীতার্ত নারী পুরুষদের মাঝে শীতবস্ত্র ( চাদর) বিতরণ করা হয়েছে।

এসব শীতবস্ত্র বিতরণ করেন মরহুমের সুযোগ্য ও কনিষ্ঠ ছেলে কক্সবাজার জেলার বিশিষ্ট তরুণ রাজনীতিবিদ ফয়সাল চৌধুরী।

২৩ জানুয়ারী সোমবার দুপুরে উপজেলার কৈয়ারবিল ইউনিয়নের খিলছাদক একাকায় শীতার্ত নারী পুরুষদের মাঝে শীতবস্ত্র (চাদর) বিতরণ করার সময় উপস্থিত ছিলেন, চকরিয়া উপজেলা প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি সাংবাদিক মুহাম্মদ মনজুর আলম, কৈয়ারবিল ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান জান্নাতুল মাওয়া, কৈয়ারবিল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি জনাব, কাউছার উদ্দিন আহমদ, কৈয়ারবিলের কৃতিসন্তান রবিউল হাসান।

আজ মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে লক্ষ্যারচর ইউনিয়নের পূর্বপাড়ায় মুক্তি যোদ্ধা আনোয়ার হোসেন বাঙ্গালী’র বাসভবন” মুক্তি যোদ্ধা কুটিরে ‘ বিপুল সংখ্যক হতদরিদ্র শীতার্ত নারী পুরুষদের মাঝে শীতবস্ত্র “চাদর ” বিতরণ করা হয়।

এসময় ফয়সাল চৌধুরীর সাথে উপস্থিত ছিলেন, লক্ষ্যারচর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক প্যানেল চেয়ারম্যান নেছারা বেগম ও লক্ষ্যারচর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি রেজাউল করিম সেলিম।

এদিন দুপুরে উপজেলার বারআওলীয়া নগর এলাকায় বিপুল সংখ্যক শীতার্ত নারী পুরুষদের মাঝে শীতবস্ত্র ” চাদর ” বিতরণ করা হয়।এসময় বারআওলীয়া নগরে ফয়সাল চৌধুরীর সাথে উপস্থিত ছিলেন লক্ষ্যারচর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফা কাইছার।

বিকেলে উপজেলার কাকারা ইউনিয়নের কাকারা হাইস্কুল মিলনায়তনে ওই এলাকার শীতার্ত নারী পুরুষদের মাঝে বিপুল পরিমাণে শীতবস্ত্র ” চাদর ” বিতরণ করা হয়।

এসময় স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের সাথে উপস্থিত ছিলেন চকরিয়া সরকারি কলেজে শিক্ষক মুজিবুল হক রতন, কাকারা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নুরুল হায়দার, শিক্ষক মুহাম্মদ ফয়সাল।

দানবীর ও রাজনীতিবিদ ফয়সাল চৌধুরী বলেন, প্রাথমিক ভাবে আমি চকরিয়া উপজেলার ৬ টি ইউনিয়নে শীতবস্ত্র বিতরণ করেছি। আগামী কয়েকদিনে মধ্যে পৌর এলাকাসহ সকল ইউনিয়নে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হবে এবং এ ধারা আগামীতেও অব্যাহত থাকবে।