আজ, বুধবার | ২৪শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ



কক্সবাজার-১ আসনে নির্বাচন করতে পারছেন না আ. লীগ প্রার্থী, মাঠে আছেন ইবরাহিম

সংবাদ দাতা মোঃ শাহেদুল ইসলাম।

কক্সবাজার-১ আসনে নির্বাচন করতে পারছেন না আ. লীগ প্রার্থী, মাঠে আছেন ইবরাহিম

ঋণখেলাপি হওয়ায় আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কক্সবাজার-১ (চকরিয়া-পেকুয়া) আসনে নির্বাচন করতে পারছেন না আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী সালাহউদ্দিন আহমেদ। এদিকে এ আসনে কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম ও বর্তমান এমপি জাফর আলমসহ ছয় প্রার্থী মাঠে লড়বেন।গত ৩ ডিসেম্বর মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই শেষে কক্সবাজারের রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক শাহীন ইমরান সালাহউদ্দিন আহমদের মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করেন। রিটার্নিং কর্মকর্তা কার্যালয় সুত্রে জানা যায়, জনতা ব্যাংকের লালদীঘি শাখা থেকে ফিস প্রিজারভারস নামের ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের বিপরীতে সালাহউদ্দিন আহমদসহ অন্য পরিচালকরা প্রায় অর্ধশত কোটি টাকা ঋণ নিয়েছিলেন। যা পরবর্তীতে খেলাপি হয়।এরপর প্রতিষ্ঠানটির পরিচালনা পর্ষদ পরিবর্তন হলেও ব্যাংকের শর্ত অনুযায়ী সালাহউদ্দিন আহমদ এখনো সেই ঋণের একজন জামিনদার। মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার শেষ দিন ৩০ নভেম্বর বাংলাদেশ ব্যাংকের সিআইবি রিপোর্ট অনুযায়ী সালাহ উদ্দিন আহমদ একজন ঋণখেলাপি ছিলেন।

প্রার্থিতা ফিরে পেতে আপিল করেন সালাহউদ্দিন আহমেদ। এ বিষয়ে বুধবার (১৩ ডিসেম্বর) প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন ৫ সদস্যের আপিল বিভাগ আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী সালাহউদ্দিন আহমেদের মনোনয়নপত্র বাতিল করে দেন। এর ফলে আর নির্বাচন করতে পারবেন না এই নৌকার প্রার্থী।

এদিকে রোববার (১০ ডিসেম্বর) জাতীয় নির্বাচনে অংশ নেওয়ায় বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিমকে দল থেকে বহিষ্কারের ঘোষণা দিয়েছেন দলটির কয়েকজন নেতা। তাকে বাদ দিয়ে নতুন কমিটি গঠনের কথাও জানিয়েছেন তারা।

কল্যাণ পার্টির শামছুদ্দিন পারভেজের সই করা এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, দলের নির্বাহী কমিটিতে থাকা ৪১ জন নেতাকে নিয়ে নতুন কমিটিতে গঠন করা হয়েছে। কমিটিতে তাকে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান করা হয়েছে। তিনি এর আগে দলের ভাইস চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

এ বিষয়ে সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম বলেন, কল্যাণ পার্টি একটি নিবন্ধিত রাজনৈতিক দল। নির্বাচন কমিশনের কাছে যে ক্ষমতা দেওয়া আছে, তাতে চেয়ারম্যানের অনুমতি ছাড়া একই নাম ব্যবহার করতে পারেন কি না, সেটা বুঝে নেওয়ার আহ্বান রইল।

কক্সবাজার-১ আসনে ৯ জন প্রার্থীর মনোনয়ন বৈধ। প্রার্থীরা হলেন জাতীয় পার্টির (জেপি) প্রেসিডিয়াম সদস্য এ এইচ সালাহউদ্দিন মাহমুদ, বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম, মহাসচিব আবদুল আউয়াল মামুন, ওয়ার্কার্স পার্টির মনোনীত প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু মোহাম্মদ বশিরুল আলম, জাতীয় পার্টি (জাপা) মনোনীত প্রার্থী হোসনে আরা, বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট মোহাম্মদ বেলাল উদ্দিন, স্বতন্ত্র প্রার্থী বর্তমান সংসদ সদস্য জাফর আলম ও জাফর আলমের ছেলে তানভীর আহমদ সিদ্দিকী তুহিন।