আজ, বুধবার | ২৪শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ



হ্নীলার সাইফুল ১ লাখ ইয়াবা নিয়ে র‍্যাবের কাছে ধরা

কক্সবাজার প্রতিনিধি মোঃ শাহেদুল ইসলাম

টেকনাফের  হ্নীলা পুর্ব সিকদারপাড়ায় অভিযান চালিয়ে ১ লাখ পিস ইয়াবাসহ গডফাদার সাইফুল ও তার সহযোগী জুবাইরকে আটক করেছে র‍্যাব।
র‍্যাব-১৫ এর আইন ও গণমাধ্যম শকার সিনিয়র সহকারী পরিচালক আবু সালাম চৌধুরী এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে টেকনাফের হ্নীলা ইউনিয়নের পূর্ব সিকদারপাড়া এলাকায় অবৈধ মাদকদ্রব্য ইয়াবা ট্যাবলেট ক্রয়-বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে অবস্থান করছে। উক্ত তথ্যের প্রেক্ষিতে  ২২ নভেম্বর সাড়ে ১০টায়  ক্যাম্পের একটি চৌকস আভিযানিক দল  মাদক বিরোধী বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে।
এ সময় র‌্যাবের উপস্থিতি বুঝতে পেরে পালানোর চেষ্টাকালে আভিযানিক দল দুইজন মাদক কারবারীকে আটক করতে সক্ষম হয় এবং কতিপয় মাদক কারবারী তাদের সাথে থাকা প্লাস্টিকের ব্যাগ ফেলে দৌড়ে পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে উপস্থিত সাক্ষীদের সম্মুখে আটককৃত ও পলাতক মাদক কারবারীদের হেফাজতে থাকা প্লাস্টিকের ব্যাগ তল্লাশী করে *সর্বমোট ১ লক্ষ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করে। আটককৃত হলো পূর্ব সিকদার পাড়ার শামসুল আলমের ছেলে সাইফুল ইসলাম প্রকাশ আতর সাইফুল।- আবু তাহেরে ছেলে মোহাম্মদ জুবাইর।
র‍্যাব কর্মকর্তা তার সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরো জানান, গ্রেফতারকৃত মাদক কারবারীদ্বয় পলাতক মাদক কারবারীদের যোগসাজশে দীর্ঘদিন ধরে ইয়াবা ব্যবসায়ের সাথে জড়িত। তারা নিত্য নতুন অভিনব পন্থায় কক্সবাজারসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে ইয়াবা চালান সরবরাহ/বিক্রয় করে আসছিল। মাদকদ্রব্য ইয়াবা পার্শ্ববর্তী সীমান্তবর্তী এলাকা হতে সংগ্রহ করে নিজেদের হেফাজতে মজুদসহ ইয়াবার চালান স্থানীয় এলাকায় বিক্রয়ের পাশাপাশি তারা আর্থিকভাবে অধিক লাভবান হওয়ার জন্য কক্সবাজার ও দেশের বিভিন্ন স্থানে পাচার করে থাকে বলে জানায়।
উদ্ধারকৃত ইয়াবাসহ ধৃত ও পলাতক মাদক কারবারীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণার্থে কক্সবাজার জেলার টেকনাফ মডেল থানায় লিখিত এজাহার দাখিল করা হয়েছে।