আজ, শুক্রবার | ৩রা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ



চকরিয়ায় ৮টি ইউপি’তে চেয়ারম্যান পদে ৫৫, সংরক্ষিত ও সাধারণ ওয়ার্ডে ৫২৩ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র দাখিল

আবদুল মজিদঃ
বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের ঘোষণা অনুযায়ী চকরিয়া উপজেলার ৮টি ইউনিয়ন পরিষদের সাধারন নির্বাচন ৪র্থ ধাপে আগামী ২৬ ডিসেম্বর অনুষ্টিত হবে। নির্বাচনের তফসিল অনুযায়ী মনোনয়নপত্র জমা দেওয়া শেষ তারিখ ছিল ২৫ নভেম্বর। উক্ত দিনে ৮টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৫৫জন, ২৪টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ১০৩জন ও ৭২টি সাধারণ ওয়ার্ডে ৩৬৫জন মেম্বার প্রার্থীসহ সর্বমোট ৫২৩জন প্রার্থী নিজ নিজ মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো: শহিদুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেন।
নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে মনোনয়নপত্র দাখিলকারী প্রার্থীরা হলেন; ডুলাহাজারা ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ১১জন। যথাক্রমে: বর্তমান চেয়ারম্যান নূরুল আমিন (নাঙ্গল), মোঃ শাহনেওয়াজ তালুকদার (নৌকা), মুহাম্মদ মাহবুবুর রহমান, মাওলানা গিয়াস উদ্দিন, কলিম উল্লাহ কলি, মোঃ হাসানুল ইসলাম আদর, মোহাম্মদ নাঈম, মোস্তাফিজুর রহমান, সোহেল মাহমুদ, এমরানুল হক ও মোহাম্মদ সেলিম। সংরক্ষিত ওয়ার্ডে প্রার্থী ১৩জন, সাধারণ ওয়ার্ডে প্রার্থী ৬২জন।
চিরিংগা ইউনিয়নে চেয়ারম্যান প্রার্থী ৬জন। যথাক্রমে; জামাল হোসেন চৌধুরী, বর্তমান চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন, কে, এম সালাহউদ্দিন, মোঃ শাহ নেওয়াজ রুমেল (নৌকা), নাজের হোছাইন, মোহাম্মদ করিম। সংরক্ষিত ওয়ার্ডে প্রার্থী ১৩জন, সাধারণ ওয়ার্ডে প্রার্থী ৪০জন।
ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নে চেয়ারম্যান প্রার্থী ১জন যথাক্রমে; মোঃ কুতুব উদ্দিন, শওকত ইসলাম, হেলাল উদ্দীন (নৌকা), সাংবাদিক আবুল মনসুর মোঃ মহসিন, নাছির উদ্দিন, এহসানুল করিম, নুর মোহাম্মদ, বদরুচ্ছালাম, হামিদ হোসেন, মুফিজ উদ্দীন। সংরক্ষিত ওয়ার্ডে প্রার্থী ১২জন, সাধারণ ওয়ার্ডে প্রার্থী ৪৯জন।
সুরাজপুর-মানিকপুর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান প্রার্থী ২জন যথাক্রমে; বর্তমান চেয়ারম্যান আজিজুল হক আজিম (নৌকা) ও  ফেরদৌস আহমদ। সংরক্ষিত ওয়ার্ডে প্রার্থী ১১জন, সাধারণ ওয়ার্ডে প্রার্থী ৩৩জন।
বমুবিলছড়ি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান প্রার্থী ৩জন যথাক্রমে; বর্তমান চেয়ারম্যান আবদুল মতলব, মনজুরুল কাদের (নৌকা), মোঃ কফিল উদ্দিন। সংরক্ষিত ওয়ার্ডে প্রার্থী ৮জন, সাধারণ ওয়ার্ডে প্রার্থী ২২জন।
হারবাং ইউনিয়নে চেয়ারম্যান প্রার্থী ১১জন যথাক্রমে; সাবেক চেয়ারম্যান জহির উদ্দিন আহমদ বাবর, মেহরাজ উদ্দিন মিরাজ (নৌকা), ছৈয়দ নুর, জয়নাল আবেদীন, সাবের আহমদ, মুজিবুর রহমান বাদশা, মুরাদ উদ্দিন চৌধুরী, জাহেদুল ইসলাম, বুরহান উদ্দিন, মোহাম্মদ শুয়াইব, সাইদুল ইসলাম। সংরক্ষিত ওয়ার্ডে প্রার্থী ১৫জন, সাধারণ ওয়ার্ডে প্রার্থী ৪০জন।
বরইতলী ইউনিয়নে চেয়ারম্যান প্রার্থী ৬জন যথাক্রমে; বর্তমান চেয়ারম্যান জালাল আহমদ সিকদার,  এ,টি, এম জিয়াউদ্দীন চৌধুরী জিয়া (নৌকা), মোহম্মদ ছালেকুজ্জমান, মোঃ নজরুল ইসলাম,  মোহাম্মদ শাহীন মুরাদ, মোঃ রফিক আহমদ ছিদ্দিকী। সংরক্ষিত ওয়ার্ডে প্রার্থী ১৩জন, সাধারণ ওয়ার্ডে প্রার্থী ৫০জন।
খুটাখালী ইউনিয়নে চেয়ারম্যান প্রার্থী ৬জন যথাক্রমে;  বর্তমান চেয়ারম্যান মুহাম্মদ আবদুর রহমান, মোহাম্মদ বেলাল (নৌকা), এস, এম মনজুর আলম, মোঃ রিহাবুল আলম, আজিজুল হক ও মোকয়েস। সংরক্ষিত ওয়ার্ডে প্রার্থী ১৮জন, সাধারণ ওয়ার্ডে প্রার্থী ৬৯জন।
তফসীল অনুযায়ী মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই হবে ২৯ নভেম্বর। ৩০ নভেম্বর থেকে ২ ডিসেম্বর পর্যন্ত বাছাইয়ে বৈধ প্রার্থীরা মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করতে পারবেন। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের সময় শেষ হলো ৬ ডিসেম্বর, প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হবে ৭ডিসেম্বর। দুই সপ্তাহের প্রচার-প্রচারণা শেষে ২৬ ডিসেম্বর ভোট গ্রহণ অনুষ্টিত হবে।