আজ, শুক্রবার | ৩রা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ



চকরিয়ায় প্রকাশ্যে বন্দুক উচিয়ে জমি দখলের চেষ্টা, মা-মেয়েসহ তিনজনকে কুপিয়ে জখম

চকরিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি
কক্সবাজারের চকরিয়ায় প্রকাশ্যে বন্দুক উচিয়ে জমি দখলের অপচেষ্টা চালানো অভিযোগ উঠেছে রিদুয়ানুল হক বাবুল (৪৫) এর নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসীর বিরুদ্ধে। এতে বাঁধা দেওয়ায় তিনজনকে কুপিয়ে জখম করা হয়েছে। এ ঘটনায় এলাকার ভীতিকর পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে।
মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে উপজেলার ঢেমুশিয়া ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ড নতুন পাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পরে বন্দুক উচিয়ে প্রকাশ্যে হুমকির একটি ভিড়িও ফেসবুকে ভাইরাল হয়। রিদুয়ান ওই এলাকার মৃত সিরাজুল হকের ছেলে।
আহতরা হলেন, ঢেমুশিয়া ইউনিয়নের নতুন পাড়ার আনোয়ার হোসেনের স্ত্রী রোকেয়া বেগম (৬৫), ছেলে মো. আইয়ুব আলী (৩৮) ও শাহ আলমের স্ত্রী হামিদা ইয়াছমিন (৪১)।
জানা গেছে, রিদুয়ান হক এলাকার একজন চিহ্নিত ডাকাত ও সন্ত্রাসী শ্রেণীর লোক হয়। তার বিরুদ্ধে চকরিয়া থানায় ডাকাতি, মারামারীসহ ৫টি মামলা রয়েছে।
জানা যায়, মঙ্গলবার সকালে আহত রোকেয়া বেগম তার মালিাকানাধীন জমিতে চাষ দিতে গেলে রিদুয়ানের নেতৃত্বে ১০-১২ জন সন্ত্রাসী দেশীয় তৈরী বন্দুক নিয়ে বাঁধা প্রদান করেন। এসময় প্রতিবাদ করলে রিদুয়ান দেশীয় তৈরী একটি লম্বা বন্দুক উচিয়ে তিন রাউন্ড ফাকা গুলি বর্ষণ করেন। পরে ভীতিকর পরিস্থিতি সৃষ্টি করে জমির মালিক মা-মেয়েসহ তিনজনকে বন্দুকের বাট ও দা দিয়ে কুপিয়ে জখম করে গুরুতর আহত করেন। এসময় স্থানীয় লোকজন এগিয়ে গেলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। আহতদের উদ্ধার করে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।
আহত আনোয়ারা বেগম বলেন, এর আগেও তার বিরুদ্ধে থানায় মামলা হয়েছে। এরপরও সে প্রকাশ্যে বন্দুক উচিয়ে আমাদের উপর হামলা করেন। আমি এ ঘটনায় অবৈধ বন্দুক উদ্ধারপূর্বক সন্ত্রাসী রিদুয়ানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।
তিনি আরো বলেন, এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।
চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শাকের মুহাম্মদ যুবায়ের বলেন , প্রকাশ্যে বন্দুক উচিয়ে হামলার ঘটনায় এখনো কেউ অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ দিলে এ বিষয়ে তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নেয়া হবে।